খালেদা জিয়ার জন্য প্রস্তুত প্রেসিডেন্সিয়াল কেবিন স্থানান্তর আজ যে কোনো সময় !

উচ্চ আদালতের নির্দেশনা মেনে শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসা নিতে সম্মতি দিয়েছেন কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া।

কারা চিকিৎসক মাহমুদুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, শিগগিরই তাকে বিএসএমএমইউতে স্থানান্তর করা হবে। এরই মধ্যে হাসাপাতাল কর্তৃপক্ষ খালেদা জিয়ার ভর্তি ও চিকিৎসার সব ধরনের প্রস্ততি সম্পন্ন করেছে।

সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর জন্য কেবিন ব্লকের ৬তলায় ৬১১ নম্বর প্রেসিডেন্সিয়াল ভিভিআইপি কেবিন প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

কারা কর্তৃপক্ষের একটি সূত্র জানিয়েছে, হাইকোর্টের নির্দেশনা বৃহস্পতিবারই কারাগারে এসে পৌঁছায়। শুক্রবারই খালেদা জিয়াক হাসপাতালে নেওয়ার সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়।

তবে বিএসএমএমইউ চিকিৎসা নিতে সম্মতি জানাতে বেগম জিয়া সময় নেন। উনার সম্মতি পাওয়া গেছে। শনিবার যে কোনো সময় তাকে হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।

খালেদা জিয়ার ভতি ও চিকিৎসার প্রস্তুতি প্রসঙ্গে বিএসএমএমইউ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুন গণমাধ্যমকে বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে আমরা উচ্চ আদালতে নির্দেশনা পাই।

এরই মধ্যে সব প্রস্ততি সম্পন্ন হয়েছে।খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য আমাদের হাসপাতাল এখন প্রস্তুত আছে।

এর আগে কারাবন্দি খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় গঠিত পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গত ১৫ সেপ্টেম্বর কারাগারে গিয়ে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন।

বিএসএমএমইউ পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আব্দুল্লাহ আল হারুনের নেতৃত্বে মেডিকেল বোর্ড, সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী বর্তমান স্বাস্থ্যগত পরিস্থিতি বিবেচনায় হাসপাতালে রেখে চিকিৎসা দেওয়ার মত দেয়।

গত বৃহস্পতিবার বিশেষায়িত হাসপাতালে ভর্তি এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে খালেদা জিয়ার করা রিট আবেদনের শুনানি করে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের বেঞ্চ তাকে দ্রুত বিএসএমএমইউ ভর্তি করে চিকিৎসা দিতে নির্দেশ দেন।

একইসঙ্গে সরকারের গঠিত মেডিকেল বোর্ড পুনর্গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। যাতে খালেদা জিয়ার পছন্দ অনুযায়ী তিনজন ডাক্তার রাখতে বলা হয়েছে। এমনকি খালেদা জিয়া চাইলে বাইরে থেকেও ডাক্তার আনতে পারবেন বলে জানিয়েছেন আদালত। তবে তা বোর্ডের অনুমোদন সাপেক্ষে।

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ে গত ৮ ফেব্রুয়ারি খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের দণ্ড দেন আদালত। সেই থেকে নাজিমুদ্দিন রোডের পুরনো কারাগারে বন্দি রয়েছেন বিএনপি চেয়ারপারসন।

উৎসঃ purboposhimbd

Facebook Comments