সেক্টর কমান্ডার মেজর নাজমুল হক স্মৃতিচারণানুষ্ঠান ও গ্রামার কনটেস্ট অনুষ্ঠিত

“লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম” এবং “মডেল ইউনিটি ক্লাব” এর যৌথ উদ্যোগে পশ্চিম কলাউজান শাহ মজিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে “লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম’র সভাপতি এম এ ছিদ্দিক’র সঞ্চালনায়-

অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ঈসমাইল’র সভাপতিত্বে “সেক্টর কমান্ডার শহীদ মেজর নাজমুল হক স্মৃতিচারণানুষ্ঠান ও গ্রামার কনটেস্ট অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট সমাজ সেবক আব্দুস সফুর, বিশেষ অতিথি ছিলেন দরগাহ মুড়া বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলমগীর, প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ, আলোচক ছিলেন অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুচ্ছাফা,

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইমরান খান বাপ্পি, মঈনুদ্দিন ইমন, আব্দুর রহমান সাগর, সাকিবুল ইসলাম,
ইউসুফ, আজাদ হোসাইন রিপন, মোরশেদুল আলম আকিব, আমজাদ হোসাইন মহিম, রেজাউল করিমসহ সংগঠনের সদস্যবৃন্দ।

উল্লেখ্য ৭ নং সেক্টর কমান্ডার থাকাকালীন সময়ে ১৯৭১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর মেজর নাজমুল হক মিত্রবাহিনীর সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক শেষে ভারতের শিলিগুড়ির ক্যান্টনমেন্ট থেকে ফেরার পথে এক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানার অন্যতম ঐতিহাসিক স্থাপনা ছোট সোনা মসজিদ প্রাঙ্গণে মেজর নাজমুল হককে সমাধিস্থ করা হয়।

অতিথিরা শিক্ষার্থীদের উদ্যেশ্যে বলেন, সেক্টর কমান্ডার মেজর নাজমুল হক আমাদের অনুপ্রেরণার বাতিঘর, নতুন প্রজন্মদেরকেও দেশপ্রেম ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে অনুরোধ করেন,

সংগঠনের সভাপতি এম এ ছিদ্দিক বলেন, একটি আদর্শ গ্রাম প্রতিষ্ঠা করার জন্য লোহাগাড়া ছাত্র সমিতির বিভিন্ন পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে৷ একজন সেক্টর কমান্ডার দীর্ঘদিন রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না পাওয়া সত্যিই দুঃখজনক।

আমরা চাই, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নতুন প্রজন্ম জানুক এবং এ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর নাজমুল হক’র যথাযথ মূল্যায়ন হোক,
প্রোগ্রাম শেষে গ্রামার কনটেস্ট ২০১৮ এ কৃতকার্য শিক্ষার্থীদেরকে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়।

“লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম” এবং “মডেল ইউনিটি ক্লাব” এর যৌথ উদ্যোগে পশ্চিম কলাউজান শাহ মজিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে “লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম’র সভাপতি এম এ ছিদ্দিক’র সঞ্চালনায়-

অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ঈসমাইল’র সভাপতিত্বে “সেক্টর কমান্ডার শহীদ মেজর নাজমুল হক স্মৃতিচারণানুষ্ঠান ও গ্রামার কনটেস্ট অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট সমাজ সেবক আব্দুস সফুর, বিশেষ অতিথি ছিলেন দরগাহ মুড়া বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলমগীর, প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ, আলোচক ছিলেন অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুচ্ছাফা,

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইমরান খান বাপ্পি, মঈনুদ্দিন ইমন, আব্দুর রহমান সাগর, সাকিবুল ইসলাম,
ইউসুফ, আজাদ হোসাইন রিপন, মোরশেদুল আলম আকিব, আমজাদ হোসাইন মহিম, রেজাউল করিমসহ সংগঠনের সদস্যবৃন্দ।

উল্লেখ্য ৭ নং সেক্টর কমান্ডার থাকাকালীন সময়ে ১৯৭১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর মেজর নাজমুল হক মিত্রবাহিনীর সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক শেষে ভারতের শিলিগুড়ির ক্যান্টনমেন্ট থেকে ফেরার পথে এক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানার অন্যতম ঐতিহাসিক স্থাপনা ছোট সোনা মসজিদ প্রাঙ্গণে মেজর নাজমুল হককে সমাধিস্থ করা হয়।

অতিথিরা শিক্ষার্থীদের উদ্যেশ্যে বলেন, সেক্টর কমান্ডার মেজর নাজমুল হক আমাদের অনুপ্রেরণার বাতিঘর, নতুন প্রজন্মদেরকেও দেশপ্রেম ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে অনুরোধ করেন,

সংগঠনের সভাপতি এম এ ছিদ্দিক বলেন, একটি আদর্শ গ্রাম প্রতিষ্ঠা করার জন্য লোহাগাড়া ছাত্র সমিতির বিভিন্ন পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে৷ একজন সেক্টর কমান্ডার দীর্ঘদিন রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না পাওয়া সত্যিই দুঃখজনক।

আমরা চাই, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নতুন প্রজন্ম জানুক এবং এ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর নাজমুল হক’র যথাযথ মূল্যায়ন হোক,
প্রোগ্রাম শেষে গ্রামার কনটেস্ট ২০১৮ এ কৃতকার্য শিক্ষার্থীদেরকে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়।

“লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম” এবং “মডেল ইউনিটি ক্লাব” এর যৌথ উদ্যোগে পশ্চিম কলাউজান শাহ মজিদিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে “লোহাগাড়া ছাত্র সমিতি-চট্টগ্রাম’র সভাপতি এম এ ছিদ্দিক’র সঞ্চালনায়-

অত্র বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ ঈসমাইল’র সভাপতিত্বে “সেক্টর কমান্ডার শহীদ মেজর নাজমুল হক স্মৃতিচারণানুষ্ঠান ও গ্রামার কনটেস্ট অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, বিশিষ্ট সমাজ সেবক আব্দুস সফুর, বিশেষ অতিথি ছিলেন দরগাহ মুড়া বায়তুশ শরফ কমপ্লেক্সের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আলমগীর, প্রবীণ রাজনীতিবিদ ও আওয়ামীলীগ নেতা নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ, আলোচক ছিলেন অত্র বিদ্যালয়ের শিক্ষক নুরুচ্ছাফা,

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইমরান খান বাপ্পি, মঈনুদ্দিন ইমন, আব্দুর রহমান সাগর, সাকিবুল ইসলাম,
ইউসুফ, আজাদ হোসাইন রিপন, মোরশেদুল আলম আকিব, আমজাদ হোসাইন মহিম, রেজাউল করিমসহ সংগঠনের সদস্যবৃন্দ।

উল্লেখ্য ৭ নং সেক্টর কমান্ডার থাকাকালীন সময়ে ১৯৭১ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর মেজর নাজমুল হক মিত্রবাহিনীর সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের বৈঠক শেষে ভারতের শিলিগুড়ির ক্যান্টনমেন্ট থেকে ফেরার পথে এক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ থানার অন্যতম ঐতিহাসিক স্থাপনা ছোট সোনা মসজিদ প্রাঙ্গণে মেজর নাজমুল হককে সমাধিস্থ করা হয়।

অতিথিরা শিক্ষার্থীদের উদ্যেশ্যে বলেন, সেক্টর কমান্ডার মেজর নাজমুল হক আমাদের অনুপ্রেরণার বাতিঘর, নতুন প্রজন্মদেরকেও দেশপ্রেম ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে অনুরোধ করেন,

সংগঠনের সভাপতি এম এ ছিদ্দিক বলেন, একটি আদর্শ গ্রাম প্রতিষ্ঠা করার জন্য লোহাগাড়া ছাত্র সমিতির বিভিন্ন পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে৷ একজন সেক্টর কমান্ডার দীর্ঘদিন রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি না পাওয়া সত্যিই দুঃখজনক।

আমরা চাই, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস নতুন প্রজন্ম জানুক এবং এ বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর নাজমুল হক’র যথাযথ মূল্যায়ন হোক,
প্রোগ্রাম শেষে গ্রামার কনটেস্ট ২০১৮ এ কৃতকার্য শিক্ষার্থীদেরকে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট বিতরণ করা হয়।

Facebook Comments